প্রেম-বিয়ে-খুন! পর পর ৩ স্ত্রীকে,খুন! কে সেই কিলার,

( ছবি জি২৪ঘণ্টা )

বিয়ের কিছুদিন পরই ফের নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়াই ছিল তাঁর ‘অভ্যাস’।

পরপর বিয়ে। আর নতুন সম্পর্কের জন্য পুরনো স্ত্রীকে খুন! রীতিমতো সিরিয়াল কিলিং। চতুর্থবার বিয়ে করার জন্য তৃতীয় স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগে শেষপর্যন্ত গ্রেফতার হলেন অভিযুক্ত স্বামী। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার খিদিরপুরে।

খিদিরপুরের বাসিন্দা শেখ শাহজাদা। শুক্রবার শাহজাদার খিদিরপুরের ডেন্ট মিশন রোডের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় তার তৃতীয় স্ত্রী সিরাত পারভিনের ঝুলন্ত দেহ। মৃতার পরিবারের দাবি, চতুর্থ এক মহিলাকে বিয়ে করা নিয়ে শাহজাদা ও সিরাতের মধ্যে দাম্পত্য কলহ চরমে উঠেছিল। পথের কাঁটা সরিয়ে ফেলার জন্যই শাহাজাদা খুন করেছেন তাঁর তৃতীয় স্ত্রীকে।

তবে এঘটনাই প্রথম নয়। অভিযোগ, এর আগেও শাহজাদা তাঁর ২ স্ত্রীকে একইভাবে খুন করেছিলেন। কোনও যুবতীর সঙ্গে প্রথমে সম্পর্কে জড়াতেন, তারপর তাঁকে বিয়ে করতেন শাহজাদা। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন পরই ফের নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়াই ছিল তাঁর ‘অভ্যাস’। আর সেই নিয়ে অশান্তি চরমে পৌঁছলে পরই স্ত্রীকে খুনের পথ বেছে নিতেন শাহজাদা।

এক্ষেত্রেও সিরাত পারভিনকে বিয়ের কিছু পর থেকেই তাঁর উপর অত্যাচার শুরু করেন শাহজাদা। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীকে মারধর করতেন তিনি। দিন দিন সিরাতের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে পৌঁছয়। এরপরই চতুর্থ এক মহিলার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন শাহজাদা। তাঁকে বিয়ে করা নিয়েই ইদানিং শাহাজাদা আর সিরাতের মধ্যে বিরোধ চরমে ওঠে। এরপরই শুক্রবার মুখে বালিশ চাপা দিয়ে সিরাতকে খুন করেন শাহজাদা।

তবে একের পর এক স্ত্রীকে খুন করেও দিব্বি খুলে আম ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন শাহজাদা। অভিযোগ, কোনওবারই পুলিস কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। সিরাত পারভিনের পরিবারের দাবি, শুক্রবারও একই জিনিস হয়। অভিযোগ দায়েরের পরও কোনও ব্যবস্থা নেয় না পুলিস।

এরপরই প্রতিবাদে সিরাতের দেহ নিয়ে পথ অবরোধ করেন স্থানীয়রা। শেষ পর্যন্ত শাহজাদাকে গ্রেফতার করে পুলিস। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

(সূত্রঃজি২৪ঘণ্টা)

 

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*