বার্সার জার্সিতে রেকর্ড ৩৩টি ট্রফি জিতলেন লিওনেল মেসি।

স্প্যানিশ সুপার কাপ জয় দিয়ে মরশুম শুরু মেসির বার্সেলোনার

পিছিয়ে পরেও দুরন্ত জয় বার্সেলোনার। সেভিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতে নিল বার্সা। ট্রফি জয় দিয়েই অধিনায়ক মেসির সূচনা হল বার্সেলোনায়।

মরক্কোর তানজিয়ারে রবিবার স্প্যানিশ সুপার কাপে মুখোমুখি হয়েছিল সেভিয়া ও বার্সেলোনা। স্পেনের ঘরোয়া ফুটবলের দুই প্রতিযোগিতা লা লিগা ও কোপা দেল রে চ্যাম্পিয়নরা সুপার কাপে একে অপরের মুখোমুখি হয়। গত মরশুমে দুটি খেতাবই বার্সেলোনা জেতায় সুপার কাপে বার্সেলোনার প্রতিদ্বন্দ্বী এবার ছিল কোপা দেল রে-র রানার্স সেভিয়া। আর এবারই প্রথম স্প্যানিশ সুপার কাপ হল স্পেনের বাইরে। এই প্রথম দুই লেগের পরিবর্তে লড়াই হল এক ম্যাচের।

রবিবার খেলার ধারার বিপরীতে ৯ মিনিটে এগিয়ে যায় সেভিয়া। লুইস মুরিয়েলের কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন পাবলো সারাবিয়া। রেফারি শুরুতে অফ-সাইডের জন্য গোল বাতিল করেন। পরে রি প্লে দেখে গোলের সিদ্ধান্ত জানান রেফারি।১৬ মিনিটে লিওনেল মেসির শট আটকে দেন সেভিয়া গোলরক্ষক। দু মিনিট পর ব্যর্থ করে দেন জর্ডি আলবার চেষ্টাও। ৩৮ মিনিটে বিপজ্জনক জায়গায় বল পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট হন লুই সুয়ারেজ। ৪১ মিনিটে বার্সেলোনাকে সমতায় ফেরান জেরার্ড পিকে। মেসির ফ্রি কিক পোস্টে লাগলে ফিরতি বলে সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেননি তিনি। ৬২ মিনিটে একটুর জন্য এগিয়ে যেতে পারেনি সেভিয়া। এভার বানেগার কর্নারে ফ্রাঙ্কো ভাসকেসের হেড ক্রসবারে লাগে। ৭৮ মিনিটে ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য দেম্বেলের গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। এরপর ইনজুরি টাইমে বার্সা গোলরক্ষক টের স্টেগেন আলেইশ ভিদালকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় সেভিয়া। কিন্তু বেন ইয়েদেরের শট সেভ করে দেন বার্সেলোনা গোলরক্ষক।

এ নিয়ে ১৩ বার স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতল বার্সেলোনা। গতবার বার্সেলোনাকে হারিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০বার এই খেতাব জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ২০১০ ও ২০১৬ সালের পর আবার সুপার কাপে বার্সেলোনার কাছে হারল সেভিয়া। এই নিয়ে বার্সার জার্সিতে রেকর্ড ৩৩টি ট্রফি জিতলেন লিওনেল মেসি। বার্সেলোনা অধিনায়ক হিসেবে ট্রফি জয়েই মরশুম শুরু মেসির।

 

 

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*