মেসির নতুন রেকর্ড বার্সেলোনার বড় জয় !

ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আলো ছড়ালেন লিওনেল মেসি। জোড়া গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদেরকে দিয়ে করালেন দুটি গোল। ঘরের মাঠে প্রথমে পিছিয়ে পরেও প্রথমবার লা লিগায় উঠে আসা সোসিয়েদাদ দেপোর্তিভ হুয়েস্কাকে উড়িয়ে ৮-২ গোলে উড়িয়ে দিল বার্সেলোনা। এদিনের ম্যাচেও কিন্তু মধ্যমণি সেই লিও মেসি। সেই সঙ্গে ফের নতুন পালক তাঁর মুকুটে। প্রথম ফুটবলার হিসাবে লা লিগায় ১৫০টি অ্যাসিস্ট করলেন তিনি !

রবিবার নূ ক্যাম্পকে স্তব্ধ করে দিয়ে ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই এগিয়ে যায় হুয়েস্কা। সৌজন্যে হুয়েস্কার কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ড কুচো এরনান্দেস। পিছিয়ে পরে দ্রুত নিজেদের গুছিয়ে নেওয়া বার্সেলোনা পাল্টা জবাব দিতে একটুও দেরি করেনি। ১৬ মিনিটে বার্সাকে সমতায় ফেরান মেসি। ২৪ মিনিটে জর্ডি আলবার নিচু ক্রস আটকাতে গিয়ে নিজেদের জালে ঠেলে দেন হুয়েস্কার জর্জে পুলিদো। আর ৩৯ মিনিটে স্কোরলাইন ৩-১ করেন লুই সুয়ারেজ। বিরতির আগেই স্কোরলাইন ৩-২ করে দেন হুয়েস্কার স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড আলেসান্দ্রো গাইয়ার।

প্রথমার্ধে লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিলেও বিরতির পর আর পেরে ওঠেনি হুয়েস্কা। ৪৮ মিনিটে সুয়ারেসের রক্ষণচেরা পাস থেকে ব্যবধান বাড়ান দেম্বেলে। ৫২ মিনিটে মেসির বাড়ানো বল ডান দিকে পেয়ে হাফ-ভলিতে দলের পঞ্চম গোলটি করেন রাকিটিচ। আর ৬১ মিনিটে পাল্টা আক্রমণে বাঁ পায়ের কোনাকুনি শটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন লিওনেল মেসি। এবারের লা লিগায় আর্জেন্টাইন তারকার এটি চতুর্থ গোল। ৮১ মিনিটে মেসির পাস থেকে স্কোরলাইন ৭-২ করেন আলবা। সঙ্গে সঙ্গে দারুণ এক মাইলস্টোন স্পর্শ করেন মেসি। একবিংশ শতাব্দীতে লা লিগায় প্রথম ফুটবলার হিসেবে ১৫০ গোলে সহায়তা করলেন তিনি।

শেষ দিকে হ্যাটট্রিক করার সুযোগ ছিল মেসির সামনে। ইনজুরি টাইমে বক্সে ঢুকে পড়া সুয়ারেজকে গোলরক্ষক ছুটে গিয়ে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। তবে স্পট কিক না নিয়ে সতীর্থ সুয়ারেজকে ছেড়ে দেন অধিনায়ক। স্পট কিকে নিজের দ্বিতীয় ও দলের অষ্টম গোলটি করেন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার।তিন ম্যাচে তিন জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে  লা লিগার শীর্ষে বার্সেলোনা। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোলপার্থক্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।

(সূত্রঃজি২৪ঘণ্টা)

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*