শাকিব নেই, বিজ্ঞাপন দিয়ে ফের বাংলাদেশী খুঁজতে নামল কেকে,আর !

কলকাতার ফ্রাঞ্চাইজি। অথচ বাঙালি কোথায়! একটা সময় একমাত্র বাঙালি ক্রিকেটার হিসাবে তিনি কলকাতার হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। কেকেআরের হয়ে শাকিব আল হাসান খেলেছেন সাত বছর। সেই শাকিব আল হাসানের বিদায় মুহূর্তে কলকাতা ফ্র্যাঞ্চাইজি তেমন একটা ঢাক-ঢোল পেটায়নি। শাকিব চলে গেলেন হায়দরাবাদে। কলকাতাকে হারাল হায়দরাবাদ। সেই ম্যাচে শাকিব দুরন্ত পারফরম্যান্স করলেন। হায়দরাবাদের কাছে কোয়ালিফায়ারে হেরে প্রবল সমালোচিত হয়েছিল নাইটরা। এখন সেই শাকিবের অভাবটা ফ্রাঞ্চ্যাইজি কর্তারা ভাল মতো অনুভব করছেন। দলে একজন কোয়ালিটি অলরাউন্ডারের গুরুত্ব ঠিক কতটা, তা হয়তো কলকাতা হারে হারে টের পাচ্ছে। আর তাই এবার কলকাতার তরফে ফের একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার খুঁজতে নামা হল। শাকিবের মতো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন, এমন কোনও বাংলাদেশী ক্রিকেটার!

শাকিব দলে থাকায় বাংলাদেশী সমর্থকদেরও আলাদা একটা আবেগ জন্মেছিল কলকাতার জন্য। বাংলাদেশে তৈরি হয়েছিল ফ্যান-বেস। কিন্তু সেটা আপাতত নষ্ট হয়েছে। শাকিব হায়দরাবাদে চলে যাওয়ার পর কলকাতা টিম ম্যানেজমেন্টকে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। কেকেআরের প্রতি আগ্রহ হারিয়েছে বাংলাদেশী সমর্থকদের। আর তাতেই নড়চড়ে বসেছেন কলকাতার কর্তারা। ২০১৯ আইপিএলের জন্য তাই আরও একবার একজন বাংলাদেশি ক্রিকেটার নিতে চাইছে কলকাতা। সেই জন্য রীতিমতো ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়েছে তারা। কলকাতা ফ্রাঞ্চাইজির তরফে ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে- ”কেকেআরের বাংলাদেশি সমর্থকেরা! আপনারাই আপনাদের খেলোয়াড়দের সব থেকে ভাল মতো চেনেন, জানেন। তাই এবার আপনাদের পরামর্শ জানানোর সুযোগ। ২০১৯ আইপিএলে কোন বাংলাদেশি খেলোয়াড়কে আপনারা কলকাতায় দেখতে চান, জানিয়ে দিন। ভিডিওর মাধ্যমে আপনাদের পরামর্শ জানিয়ে পাঠিয়ে দিন।”

মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস, সৌম্য সরকার—অনেকের নামই উঠে এসেছে এর পর থেকেই। বিক্ষুব্ধ অংশের সমর্থকরা জানিয়েছেন, শাকিবের সঙ্গে অন্যায় হয়েছে। তাই তাঁরা আর কোনও বাংলাদেশী ক্রিকেটারকে কলকাতার হয়ে খেলতে দেখতে চান না। মাশরাফি বিন মুর্তজা ও সাকিবকে নিয়মিত খেলতে না দেওয়াকে অনেকে আবার চক্রান্ত বলে দাবি করেছেন। এবারের আইপিএলে শাকিব একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে দল নিশ্চিত করে ফেলেছেন। ১৮ ডিসেম্বর জয়পুরে আইপিএল নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। তালিকায় দুজন বাংলাদেশি ক্রিকেটা রয়েছেন। উইকেটকিপারদের তালিকায় আছেন মুশফিক। অলরাউন্ডার হিসাবে মাহমুদউল্লাহ। দুজনেরই বেস প্রাইজ ৫০ লক্ষ টাকা।

(সূত্রঃজি২৪ঘণ্টা)

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*