প্রতিদিন দাঁত মাজা ছাড়া ও টুথপেস্টর ৬টি গুন !

প্রতিদিন দাঁত মাজার জন্য যে টুথপেস্ট ব্যবহৃত হয় তা কাজে লাগিয়ে এমন কিছু সমস্যায় সমাধান পাওয়া যায় যা এক কথায় অকল্পনীয়! আসুন জেনে নেয়া যাক টুথপেস্টের তেমনই কিছু মজার ব্যবহার।

১) রাঁধতে গিয়ে বা কোনও ভাবে হঠাৎ হাত পুড়ে গেলে শরীরের ওই পোড়া অংশে সঙ্গে সঙ্গে টুথপেস্ট লাগিয়ে দিন। কিছু ক্ষণের মধ্যেই জ্বালা ভাব কমে যাবে। তবে খেয়াল রাখবেন, অনেকটা অংশ পুড়ে গেলে এই পদ্ধতি একেবারেই চলবে না।

২) মুখে ব্রণ হলে, ব্রণ আক্রান্ত অংশে রাতে শোবার আগে টুথপেস্ট লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখবেন, ব্রণর আকৃতি অনেকটাই ছোট হয়ে গিয়েছে। এই ভাবে ধীরে ধীরে ব্রণ সেরেও যাবে।

৩) অনেক সময় রান্না করার সময় হলুদ, মশলা লেগে লেগে নখ হলদেটে হয়ে যায়। এ ক্ষেত্রে নখে টুথপেস্ট লাগিয়ে ভাল করে ঘষে নিন। দেখবেন, নখের হলদেটে ভাব কেটে যাবে।

৪) পুরনো রুপোর গয়নার কালচে ছোপ পড়ে গেলে সেই কালচে ছোপ দূর করে গয়নার চাকচিক্য ফিরিয়ে আনতে টুথপেস্ট অত্যন্ত কার্যকরী। পুরনো রুপোর গয়নায় টুথপেস্ট লাগিয়ে একটু সময় নিয়ে ধীরে ধীরে ব্রাশ দিয়ে ঘষুন। এর পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, নখের রুপোর গয়নার কালচে ছোপ কেটে গিয়ে নতুনের মতো চকচকে হয়ে যাবে।

৫) মশা বা অন্য কোনও পোকা-মাকড় কামড়ালে অনেক সময় চুলকোয় বা জ্বালা করতে থাকে। কখনও কখনও আক্রান্ত অংশ ফুলে ওঠে। আক্রান্ত স্থানে টুথপেস্ট লাগিয়ে দিলে ত্বকের জ্বালাভাব বা চুলকানি দ্রুত কমে যাবে।

৬) ঘরের দামি সাধের কার্পেটে খাবার পড়ে দাগ হয়ে গিয়েছে? চিন্তার কিছু নেই! কার্পেটের এই দাগ তুলতে টুথপেস্ট অত্যন্ত কার্যকর। কার্পেটের দাগ লাগা অংশে টুথপেস্ট লাগিয়ে ব্রাশ দিয়ে আলতো করে কিছু ক্ষণ ঘষুন। এর পর ভিজে কাপড় দিয়ে আলগোছে মুছে ফেলুন। কার্পেটের দাগ চলে যাবে।

(সূত্রঃজি২৪ঘণ্টা)

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*