তরতরিয়ে পাঁচ তলায় উঠে বাঁচালেন শিশুর প্রাণ, রাতারাতি প্যারিসের হিরো ‘স্পাইডারম্যান’

বহুতলের বারান্দা থেকে ঝুলন্ত শিশুকে উদ্ধার করে আপাতত গোটা ফ্রান্সের হিরো এক ২২ বছর বয়সী যুবক। পশ্চিম আফ্রিকার মালি থেকে ফ্রান্সে প্রবাসী মামউদউ গাসামা নামে ওই যুবককে সাহসিকতার জন্য শংসাপত্র দিয়েছে প্যারিস পুলিস। তাঁর হাতে ফ্রান্সের নাগরিকত্ব তুলে দিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ।                                                                                 বহুতলের বারান্দা থেকে ঝুলন্ত শিশুকে উদ্ধার করে আপাতত গোটা ফ্রান্সের হিরো এক ২২ বছর বয়সী যুবক। পশ্চিম আফ্রিকার মালি থেকে ফ্রান্সে প্রবাসী মামউদউ গাসামা নামে ওই যুবককে সাহসিকতার জন্য শংসাপত্র দিয়েছে প্যারিস পুলিস। তাঁর হাতে ফ্রান্সের নাগরিকত্ব তুলে দিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ।

শনিবার সন্ধ্যা ৮টা নাগাদ উত্তর প্যারিসের একটি বহুতল আবাসনের বারান্দা থেকে ঝুলতে দেখা যায় এক শিশুকে। শিশুটিকে বাঁচাতে বারান্দা থেকে চেষ্টা চালাচ্ছিলেন এক যুগল। কিন্তু কিছুতেই শিশুর নাগাল পাচ্ছিলেন না তাঁরা। তখনই রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন গাসামা। আগু পিছু না ভেবে শিশুটিকে বাঁচাতে বারান্দা বেয়ে তরতরিয়ে ৫ তলায় উঠে পড়েন তিনি। গোটা ঘটনাটি ক্যামেরাবন্দি করেন পথচারীরা। সেই ভিডিও ইতিমধ্যে গোটা বিশ্বজুড়ে ভাইরাল হয়েছে। গাসামাকে ‘স্পাইডারম্যান’ নাম দিয়েছেন ফরাসিরা।গাসামা জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন হল দেশ ছেড়েছেন তিনি। বুরকিনা-ফাসো, নাইজেরিয়া হয়ে উদ্বাস্তুদের নৌকায় অবৈধ উপায়ে গত সেপ্টেম্বরে ফ্রান্সে প্রবেশ করেন তিনি। সংবাদমাধ্য়মকে ওই যুবক জানিয়েছেন, ‘রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম হঠাত্ শুনি সবাই চিত্কার করছে। গাড়িগুলো হর্ন বাজিয়েই চলেছে। সঙ্গে সঙ্গে বারান্দা বেয়ে উঠতে শুরু করি আমি। শিশুটিকে বাঁচানোর পর আমি ভয়ে কাঁপতে শুরু করি। বারান্দা থেকে ঘরে ঢুকে আমি আর দাঁড়াতে পারছিল না। পা ঠকঠক করে কাঁপছিল, তাই বসে পড়ি।’সোমবার গাসামার সঙ্গে দেখা করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ। উদ্ধারের সময় শিশুটির অবস্থা জানতে চান তিনি। বাহবা জানান ওই যুবককে। সঙ্গে জানান, ফ্রান্সের স্থায়ী নাগরিকত্ব দেওয়া হবে তাঁকে।
গাসামার এই অসম সাহসিকতায় ধন্য ধন্য করছে গোটা ফ্রান্স। এতে অভিবাসীদের প্রতি নাগরিকদের দৃষ্টিভঙ্গি বদলাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*