সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ করল, দাদারা,

ভারতের জলপাইগুড়ির আনন্দপাড়া এলাকার এই ঘটনা,                                                                                              ওই ছাত্রীকে প্রতিদিনই স্কুলে যাতায়াতের পথে দেখত, তখন থেকেই প্ল্যন কষে সৌরভ ও তার দলবল।

ঘণ্টা চারেক ধরে কিশোরীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। খোঁজ চলছিল সর্বত্র। পরে এলাকারই একটি পরিত্যক্ত বাড়ির পিছন থেকে গোঙানির শব্দ শুনতে পেয়েই সূত্র খুঁজে পেলেন কিশোরীর পরিবারের সদস্যরা। মুখের কাপড় খোলার পর সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রী যা জানালেন তা শিউরে ওঠার মতো। এলাকায় লেবারের কাজ করতে আসা পাড়ার ‘দাদা’রাই নাকি অপহরণ করেছিল তাকে। জলপাইগুড়ির আনন্দপাড়া এলাকার এই ঘটনার পরবর্তী মোড় আরও চাঞ্চল্যকর।

মালদার গাজোল থেকে জলপাইগুড়িতে ঠিকা শ্রমিকের কাজ করতে গিয়েছিল সৌরভ সহ পাঁচ যুবক। আনন্দপাড়া এলাকায় কাজ করতে গিয়ে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণ করার ছক কষেছিল তারা। ওই ছাত্রীকে প্রতিদিনই স্কুলে যাতায়াতের পথে দেখত, তখন থেকেই প্ল্যন কষে সৌরভ ও তার দলবল। সোমবার ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে তারা।

(সূত্রঃজি২৪ঘণ্টা)

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*